Breaking News

অভিনব কায়দায় জঙ্গলে ফাদ পেতে বন মুরগি শিকার করল যুবক, যুবকের মুরগি শিকার করার ভিডিওটি তুমুল ভাইরাল!

নিজস্ব প্রতিবেদন: শিকারের সাথে মানুষ আদিম কাল থেকে সম্পর্কযুক্ত। মানুষ সৃষ্টি লগ্ন থেকেই খাদ্যের জন্য শিকার করে আসছেন। বর্তমান যুগেও কিছু দেশে অন্য মানুষ বসবাস করে। যারা সভ্যতা থেকে অনেক বাইরে। তারা এখনো আদি যুগের মানুষের মত খাদ্যের জন্য বিভিন্ন প্রাণী শিকার করে থাকে। শিকারি প্রাণীদের মধ্যে রয়েছে হরিণ, বন্য গরু, ছাগল, বনমুরগী ও বিভিন্ন পাখি। এই প্রাণীগুলো মানুষ তার ক্ষুধা নিবারণের জন্য শিকার করে খায়।

বর্তমানে অধিকাংশ মানুষ শিকার করে শখের বশে। শিকার করার অনেক পদ্ধতি ও বিভিন্ন সরঞ্জাম রয়েছে।যা দ্বারা বিভিন্ন কায়দায় বিভিন্ন প্রাণী শিকার করে থাকে। তবে বর্তমানে প্রযুক্তির অগ্রগতির ফলে শিকার করার সরঞ্জাম এর উন্নত হয়েছে। বর্তমানে নতুন নতুন শিকার করার সরঞ্জাম উদ্ভাবন হচ্ছে। যা দ্বারা খুব সহজে শিকার করা সম্ভব। শিকারের জন্য নির্বাচন করা হয় বিশেষ করে বন্যপ্রাণী কে।

কিছুদিন আগে নেটে একটি ভিডিও ভাইরাল হয় যেখানে একটি ছেলে অভিনব পদ্ধতিতে ফাঁদ তৈরি করে বনমুরগী শিকার করছে। এই ফাঁদ তৈরি করতে প্রয়োজন হয়েছে কিছু সুতা ও বাঁশের কঞ্চি। এবং একটি মুরগী। একটি নির্দিষ্ট জায়গা নির্বাচন করে ফাঁদ গুলো পেতে এর মাঝখানে একটি মুরগির বেঁধে রাখা হয়। বনমুরগী গুলো বেঁধে রাখা মুরগীকে দেখে যখন কাছে আসতে চায় তখনই তার পা ফাঁদে আটকে পড়ে।

আমাদের দেশের পাহাড়ি অঞ্চলে এ ধরনের বন্য মুরগির বসবাস রয়েছে । পাহাড়ি অঞ্চলে তা প্রায় সচরাচর দেখা যায়। বন্যা মুরগি আকারে বেশি বড় হয় না। কিন্তু তা খুব চালাক প্রকৃতির হয়ে থাকে। এরা মানুষের উপস্থিতি টের পেলে নিমেষে উধাও হয়ে যায়। বনমুরগী বেশ দ্রুত গতি সম্পন্ন হয়ে থাকে। এবং এদের খুব দ্রুত নিজেকে আড়াল করার ক্ষমতা রয়েছে। পাহাড়ি অঞ্চলে এদের সামনা সামনি দেখা না গেলেও এদের ডাক সচরাচর শোনা যায়।

মুরগি ধরার বিভিন্ন প্রকার ফাঁদ রয়েছে। এ পদ্ধতিতে মুরগি ধরার একটা সুবিধা রয়েছে তা হচ্ছে অক্ষতভাবে মুরগি ধরা সম্ভব। কিছু কিছু পদ্ধতি আছে যা দিয়ে স্বীকার করলে শিকারি প্রাণী গুলো আঘাতপ্রাপ্ত হয় অনেক সময় মারা যায়। এই পদ্ধতিতে মুরগি সম্পূর্ণ অক্ষত অবস্থায় ধরা যাবে। এ পদ্ধতিতে মুরগির সহ আরো বিভিন্ন পাখি শিকার করা যায়। বর্তমানে জীবিকা নির্বাহের উদ্দেশ্যে শিকার না করলেও সখের বসে এখনো অনেক মানুষ শিকার করে থাকে।

আদিকালের মানুষ জন শিকার করার জন্য যে সরঞ্জাম ব্যবহার করে বর্তমান সময়ে শিকারের জন্য সেগুলো আর ব্যবহার করা হয় না। প্রযুক্তির অগ্রগতির ফলে সরঞ্জামগুলো অনেক উন্নতি হয়েছে। যার মাধ্যমে শিকার করা খুব সহজ হয়েছে। ভিডিওটিতে একটি ছেলে যে পদ্ধতিতে মুরগি শিকার করে তা একটি প্রাচীন পদ্ধতি। হয়তো অনেকে এর পূর্বে এ পদ্ধতিটি দেখে। এই পদ্ধতিতে মুরগি সহ আরো অন্যান্য পাখি ধরার ভিডিও আমরা সচরাচর ইউটিউবে দেখে থাকি। আজকের এই ভিডিওটিতে কিভাবে ফাঁদের মাধ্যমে বনমুরগী শিকার করা হয় তা দেখানো হয়েছে।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ

Check Also

শখের বসে করা ছাগলের খামারে তিন বছরে ১৫ লাখ টাকার বাজিমাত!

নিজস্ব প্রতিবেদন: নাম শিবলী নোমান। ২০০১ সালে এসএসসি পাশের পর নানা প্রতিবন্ধকতায় বন্ধ হয়ে গেল …