Breaking News

ঈগলের ডিম খেয়ে ফেলায় মা ঈগল প্রতিশোধ নিতে এসে সাপের মুখ ছিড়ে ফেলল। এমন ভয়ংকর ভিডিও দেখে হতবাক নেটিজনরা। নেটদুনিয়ায় ভাইরাল ভিডিও

<strong>নিজস্ব প্রতিবেদন:</strong>ঈগল একপ্রকার বৃহৎ আকার, শক্তিধর, দক্ষ শিকারি পাখি। ঈগল সাধারণত বনে বা ঘন জঙ্গলে বসবাস করে থাকে। বানর, ছোট জাতের পাখি, টিকটিকি, হাস-মুরগী খেয়ে জীবনধারণ করে থাকে। একটি পূর্ণবয়স্ক ঈগলের ওজন প্রায় ৩০ কেজি এবং লম্বায় প্রায় ৩০-৩৫ ইঞ্চি হয়ে থাকে।

অন্যান্য পাখির মতো ঈগল পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে তীব্র গতি সম্পন্ন। বিভিন্ন পাখি যেমন কন্ডর পেলি কান শিকারের জন্য ফাঁদ তৈরি করলেও   ঈগল এদের মধ্যে ফাঁদ তৈরি করতে সবচেয়ে বেশি এক্সপার্ট। পৃথিবীব্যাপী সর্বমোট ৬০ প্রজাতির রয়েছে। এদের মধ্যে বেশিরভাগ পাখি এশিয়া এবং আফ্রিকা অঞ্চলে বসবাস করে। তবে এক্ষেত্রে কিছু প্রজাতি বন জঙ্গলে বসবাস করে এবং কিছু প্রজাতি লোকালয়ের মধ্যে সবচেয়ে উঁচু গাছে বসবাস করে।

স্বভাবত আমরা মনে করি জঙ্গলে যেসব ঈগল বসবাস করে তাদের ডানা অনেক লম্বা হওয়ার কথা কিন্তু বাস্তবে তা হয় না। বরং জঙ্গলে বসবাসরত ঈগলের ডানা আকারে ছোট হয় এবং লোকালয়ের আশেপাশে বসবাসরত ঈগলদের ডানা বড় আকৃতির হয়।সাহারা মরুভূমির বুকে বিচরণকারী সিংহের পরিচিত পশুরাজ হিসাবে। অন্যদিকে পাখিরাজ্যে এই আসন ঈগলের দখলে।

পাখিরাজ্যে অসংখ্য প্রজাতির পাখির বিচরণ থাকলেও, কোন বৈশিষ্ট্যের কারণে ঈগলের ঝুলিতেই গেল এই বিশেষ মর্যাদা? ঠিক কোন কোন পরিমাপকের উপর ভিত্তি করে একটি নির্দিষ্ট প্রজাতির পাখিকে অন্য পাখিদের ওপর শ্রেষ্ঠত্ব প্রদান করা যায়, সেদিকে আমরা মনোনিবেশ করবো। সেই সাথে এই নিবন্ধে উন্মোচন করা হবে ঈগল পাখির রাজা হবার নেপথ্যের কারণও।এমন অনেক কৌতুহল সম্পর্কিত তথ্য আজকে আমরা জানব।

আকাশের সব চেয়ে ভয়ংকর প্রাণী হলো ঈগল।আর ঈগল ঘন্টা প্রায় তিনশ কিলো মিটার গতিতে উড়তে পারে।শুধু তাই নয় এই পাখির দৃষ্টি-শক্তি এতটা যে তারা পাচ কিলোমিটার শিকার কে দেখতে পায়।বন্ধুরা আমরা আজ এই ভিডিও তে দেখব ঈগল পাখির ভয়ংকর ও অসাধারণ দৃশ্য যা দেখে আপনি আমার মত চমকে যাবেন।ঈগলের শক্তিশালী মাংশপেশী লম্বা টানা যা আকাশে উড়তে দ্রুত গতিতে পারে।

এই পৃথিবীতে বেঁচে থাকার জন্য প্রতিটি প্রাণীর খাদ্যের প্রয়োজন। বৈচিত্র্যময় পৃথিবীতে রয়েছে লক্ষ লক্ষ প্রজাতির প্রাণী। এসব প্রাণীর বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় খাদ্যের পরিমাণ পরিমিত। তাই প্রতিটি প্রাণীকে লড়াই করে বেঁচে থাকতে হয়। শুধু মানুষ নয় জীবজগতের অন্যান্য প্রাণী কেউ খাদ্যের জন্য লড়াই করে টিকে থাকতে হয়।আমরা এই ভিডিওটি দেখতে পাচ্ছি প্রাণীদের মধ্যে বন্ধুত্ব কাকে বলে।

বনের মধ্যে অসুস্থ এক সাপকে সেবা সুস্থতা করছে ভয়ংকর হিংস্র ঈগল সত্যি প্রশংসার যোগ্য। বন্ধুত্ব দিনের জন্য হলেও এ দৃশ্যটি। বন্ধুত্ব শুধু মানুষের মধ্যে থাকে না। বন্ধুত্বের মধ্যে রয়েছে। তারা তো সবসময় হিংস্রতাকে এটা ভুল কথা। পৃথিবীতে সকল প্রাণীর মধ্যে ভালোবাসা বন্ধুত্ব রয়েছে। অনেক প্রাণীদের মধ্যে বন্ধুত্ব দেখে আমরা আমরা অনুপ্রাণিত হই এবং তাদের বন্ধুত্ব দেখে আমরা অনেক কিছু শিখতে পারি।বন্ধুত্ব এর উপরে আর বড় কিছু হতে পারে না। বন্ধুরা সর্বদাই একে অপরের পাশাপাশি থেকে সাহায্য করে। একে অন্যের বিপদের সময় পাশে এসে দাড়ায়।

Check Also

ফুটবল ইতিহাসের সেরা ৫টি মজার সেলিব্রেশন! যা দেখলে আপনি হাসতে বাধ্য ,রইলো ভাইলাল সেই ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন:পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা হচ্ছে ফুটবল। পৃথিবীতে কয়েক হাজারেরও বেশি খেলা থাকার পরেও ফুটবল …