Breaking News

একটি ডিম আর একটা বেগুন দিয়ে ঝটপট বানিয়ে ফেলুন খুব মজার এই নাস্তাটি, পরিবারের সবাই পছন্দ করবে রইল বিস্তারিত রেসিপি!

নিজস্ব প্রতিবেদন: সবজি আমাদের দেহের বিভিন্ন ধরনের ভিটামিনের চাহিদা মেটায়। প্রতিদিন আমাদের খাবারের তালিকা ভিটামিন জাতীয় খাবার রাখতে হয়। কারণ আমাদের দেহের বিভিন্ন ধরনের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এবং বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সচল রাখার জন্য আমাদের ভিটামিন জাতীয় খাবার খাওয়া একান্ত কর্তব্য। আর আমরা এই ধরনের ভিটামিন জাতীয় খাবার খাওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের শাকসবজি রান্না করে খেয়ে থাকি। আর আমরা এই ধরনের শাকসবজি দুপুর, বিকাল বা রাতে খেয়ে থাকি। তবে বিকালের নাস্তার সাথে বিভিন্ন ধরনের শাকসবজি খেতে অসাধারণ লাগে। কারণ আমাদের বাসার ছোট ছেলেমেয়েরা ভাতের সাথে সবজি খেতে চায় না। তাই তাদেরকে বিভিন্নভাবে প্রসেস করে সবজি খাওয়াতে হয়। তাই বিকালে নাস্তা সাথে যদি সবজির দিয়ে ভিটামিনের চাহিদা মেটানো যায় তাহলে কিন্তু মন্দ হয় না।

অন্যদিকে আমাদের গৃহিণীরা বিকালের নাস্তা তৈরি করতে একটু একঘেয়েমি প্রকাশ করে। তাই তাদের এই একঘেয়েমি এবং বাচ্চাদের ভিটামিনের চাহিদা মেটানোর জন্য আমরা আপনাদের সামনে নিয়ে আসলাম, ঝটপট কিভাবে নাস্তা তৈরি করা যায়? আর এই নাস্তাটি তৈরি করতে একটি মাত্র বেগুন এবং একটি ডিমের প্রয়োজন হয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক আমাদের এই ঝটপট একটি বেগুন ও একটি ডিম দিয়ে কিভাবে একটি অসাধারণ নাস্তা তৈরি করে যায়।

এই রেসিপিটি জন্য যা যা লাগবে তা হচ্ছে- একটি বেগুন, একটি ডিম, ব্রেডক্রাম, লবণ, গোলমরিচ গুঁড়া, হলুদ গুঁড়া, চালের গুড়া।

এখন চলুন জেনে নেওয়া যাক রেসিপি কিভাবে তৈরি করবেন- প্রথমে একটি বেগুন গোল করে কেটে নিতে হবে। আপনারা যে রকম ভাবে বেগুন ভাজা তৈরি জন্য গোল গোল করে কাটেন সেরকম। এরপর বেগুনগুলো সাথে সাথে পানিতে ভেজাতে হবে। তা না হলে বেগুনগুলো কালো হয়ে যাবে। কিছুক্ষণ পানিতে ভেজানোর পর বেগুন গুলো ভালো করে ধুয়ে নিয়ে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে।

এখন সেই বেগুন গুলোতে পরিমাণমতো লবণ। ১ চা-চামচ গোলমরিচ গুঁড়া, ১ চা চামচ হলুদ গুঁড়া, ২ টেবিল চামচ চালের গুড়া দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিতে হবে। যাতে প্রত্যেকটি বেগুনের গায়ে মসলা ভালোভাবে লাগানো হয়। আপনারা যদি ঝাল বেশি পছন্দ করেন তাহলে গোলমরিচের সাথে আপনারা শুকনা মরিচ গুঁড়ো ও ব্যবহার করতে পারেন। আর এখানে গোলমরিচ গুঁড়ো ব্যবহার করা হয়েছে ফ্লেভার বাড়ানোর জন্য এবং হালকা ঝাল ভাব আনার জন্য।

চালের গুড়া আপনি দিতে পারেন আবার নাও দিতে পারেন। তবে চালের গুড়া দিলে আপনি যখন বেগুন কামর দেবেন তখন আপনার মুখে ক্রিস্পি ভাব নিয়ে আসবে। তাই বেগুনের মধ্যে চালের গুড়া দেওয়া উচিত। তবে আপনি চাইলে না দিতে পারেন। বেগুন গুলো মাখানোর সময় যদি আপনার কাছে বেশি শুকনো মনে হয় তাহলে একটি ডিম ফেটে সেখান থেকে সামান্য অংশ নিয়ে, সেখানে মিশিয়ে ভালো করে বেগুন গুলোকে মসলা মাখাতে পারেন।

এখন একটি ডিম ছোট্ট একটি পাত্রে ভালোভাবে ফেটিয়ে নিতে হবে। এবং অন্য একটি পাত্রে দেড় কাপের মতো ব্রেডক্রাম নিতে হবে। এখন মসলা মাখানো বেগুনগুলো ব্রেডক্রাম এ ভাল করে ঘুরিয়ে নিয়ে ডিমের মধ্য চুবিয়ে হতে হবে। এরপর আবার ব্রেডকাম এ ভালো করে গড়িয়ে নিতে হবে। ব্রেডক্রাম এ গরিয়ে নেওয়ার পর একটু ভালোভাবে জেরে অতিরিক্ত ব্রেডক্রাম জেরে নিতে হবে। এরপর বেগুনগুলো অন্য একটি পাত্রে আলাদা ভাবে রাখতে হবে। তবে সবগুলো বেগুন ভালোভাবে ব্রেডকাম এবং ডিমের এর কোডিং করে নিতে হবে।

এখন একটি পাত্রে সাদা তেল হালকা গরম করে বেগুনগুলো এপিঠ ওপিঠ করে ভেজে নিতে হবে। চুলার আঁচ মিডিয়াম টু হাই রেখে দিতে হবে। বেগুনগুলো চুলা থেকে নামানোর আগে ভালো করে দেখে নিবেন যাতে ভিতরে বেগুনের অংশ সেদ্ধ হয়। এরপর আপনি আপনার পছন্দমত সস দিয়ে আপনি আপনার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বেগুনের অসাধারণ রেসিপিটি উপভোগ করতে পারেন।

আপনারা যদি বেগুনের এই অসাধারণ রেসিপিটি দেখতে চান তাহলে আমাদের নিচের লিংকে যেতে পারেন, বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ

Check Also

খুব সহজে ২ টি সিদ্ধ আলু আর 1 টি ডিম দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের নাস্তা, সবাই খুব পছন্দ করবে, রইল স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন: আলু দিয়ে তৈরি করা যায় নানা ধরনের দুর্দান্ত সব রেসিপি, প্রায় প্রত্যেকটি রেসিপি …