Breaking News

একদম নতুন কায়দায় পাইপ দিয়ে মাছ ধরে তাক লাগিয়ে দিলেন গ্রামের বৌদি, হয়েছেন প্রশংসিত ব্যাপক ভাইরাল তার ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: পেশা বা শখ হোক না কেন মাছধরা বাঙ্গালীদের জন্য খুবই আনন্দের ব্যাপার। কেননা আদিকাল থেকেই বাঙালিরা মাছ ধরে আসছে পেশা হিসেবে এবং সখের বসে ।বিশেষ করে যারা গ্রামে বসবাস করি তাদের বিভিন্ন ভাবে মাছ ধরার অভিজ্ঞতা অবশ্যই থাকবে। গ্রামে বসবাসকারীদের মধ্যে অনেকে মাছধরা পেশা হিসেবেও গ্রহণ করেছে। বিশেষ করে যারা খাল বিল ও নদ-নদীর তীরবর্তী এলাকায় বসবাস করে তাদের মধ্যে মাছ ধরার অভিজ্ঞতাটা বেশি থাকে। এবং নদীর পাড়ে গড়ে ওঠে জেলেদের বসবাস। তবে বর্তমানে অনেক মানুষ আছে যারা শখের বসে মাছ ধরে।

বিশেষ করে যারা শহরে বসবাস করে তারা মাঝেমধ্যে বিভিন্ন অত্যাধুনিক সরঞ্জাম নিয়ে নদী কিংবা খাল বিলের ধারে মাঝেমধ্যে মাছ ধরতে যায়। অনেক সময় শহর এলাকায় নদ-নদী খাল-বিল এর অভাবে শখের বশেও মাছ ধরাটাও সম্ভব হয়ে ওঠেনা। কেননা শহরাঞ্চলে খাল-বিল সচরাচর পাওয়া যায় না।এতে বিভিন্ন আধুনিক এবং পুরনো সরঞ্জাম ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

আমরা অনেক সময় ইউটিউব কিংবা ইন্টারনেট এ বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন মাছ ধরার ভিডিও ভাইরাল হয়ে থাকে। যেগুলোতে দেখানো হয় বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় নতুন নতুন সরঞ্জাম ব্যবহার করে নদ-নদী কিংবাখাল-বিল থেকে কিভাবে মাছ ধরার হয় তার ভিডিও। আজকের ভিডিওটিও ঠিক তেমনি যেখানে দেখানো হয়েছে একটি মহিলা পুকুরের মধ্যে হতে কিভাবে নব আবিস্কৃত সরঞ্জাম দিয়ে বিভিন্ন প্রকার দেশি মাছ ধরা হয়। এই ধরনের ভিডিও আমরা ইন্টারনেটের সচরাচর দেখতে পাই। ভাইরাল ভিডিও গুলোর মধ্যে এই ভিডিও গুলো অন্যতম।

এই নতুন সরঞ্জাম টি তৈরি করতে লম্বা একটুকরো পাইপের প্রয়োজন। তারপর পাইপের অনুযায়ী আরেক টুকরো ব্লক তৈরি করে নিতে হবে। ব্লক তৈরি করতে সিমেন্ট বালি এবং এক টুকরো রডের প্রয়োজন। ব্লক টি এমন ভাবে তৈরি করতে হবে যেন পাইপের মাঝখান দিয়ে খুব সহজে আসা-যাওয়া করতে পারে। লোকটির উপরের প্রান্তে একটি রডের টুকরো দিয়ে হোক তৈরি করে নিতে হবে। যাতে দড়ি দিয়ে এই হোকের মধ্যে বেদে টেনে নিয়ে আসা যায়।

পাইপের নিচের অংশে ছোট একটি ছিদ্র তৈরি করতে হবে যার মধ্য দিয়ে মাছগুলো এই টাইপের মধ্যে প্রবেশ করতে পারবে। তারপর একটি কাপড় দিয়ে মাছের টোপ গুলো বেঁধে নিতে হবে। পাইপের মধ্যে দিয়ে টোপ গুলো একটি রশি দিয়ে বেঁধে পাইপের ছিদ্র বরাবর নিয়ে রেখে দিতে হবে। তারপর সরঞ্জাম টি পানির মধ্যে ডুবিয়ে দিলে মাছগুলো খাবার খাওয়ার জন্য ছিদ্র দিয়ে প্রবেশ করবে। আর ঠিক তখন বেঁধে রাখা ব্লকটিকে টান দিলে ছিদ্র দিয়ে প্রবেশ করা মাছগুলো খুব সহজেই উপরে চলে আসবে।

ইউটিউবে এরকম ভিডিও সচরাচর পাওয়া যাবে যেখানে এরকম বিভিন্ন দেশীয় সরঞ্জাম দিয়ে বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় মাছ ধরে। তবে এখনো গ্রাম্য এলাকায় গেলে এই ধরনের বিভিন্ন সরঞ্জাম দিয়ে মাছ ধরা সরাসরি দেখতে পাওয়া যায়। খাল বিল ও নদ-নদীতে যারা সারাদিন মাছ ধরতে দেখা যায়। যেখানে সরঞ্জাম হিসেবে ব্যবহার করে বিভিন্ন প্রকার জাল বরশি ও অন্যান্য বিশেষ ধরনের পদ্ধতি।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ

Check Also

ডুবায় পড়ে থাকা খড়ের স্তূপ সরাতেই লংকা কান্ড! লুকিয়ে ছিল মাগুর ও পুটি মাছের ঝাক, সেকেন্ডের মধ্যেই বদলে গেল যুবকের ভাগ্য! ভাইরাল সেই ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন:কখন কি নিজের হাতে মাছ ধরেছেন? আপনি চাইলেই মাছ ধরতে পারবেন না মাছ ধরার …