Breaking News

কৃষকের গোয়াল ঘড়ে বাসা বেধেছে কালে গো,করা সা,প, সবাই ভয়ে একাকার আনা হল সা,পুড়ে ধরল দুটি সা,প ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সেই প্রাচীনকাল থেকেই মানুষ বসবাস করার জন্য ঘরবাড়ি বানিয়ে থাকে। আশ্রয় ও নিরাপদে থাকার জন্য মানুষের একান্ত প্রয়োজনীয় একটি মাধ্যম হচ্ছে এ বাড়িঘর। বৃষ্টি ,ঝড়-বাদল বা অন্য কোনো ধরণের প্রাকৃতিক দুর্যোগ বা মানুষ সৃষ্ট দুর্যোগ এ সকলের থেকে পরিবারের সকলকে সুরক্ষার অন্যতম মাধ্যম বাড়ি ঘর। এ ঘর তৈরীর জন্য কাঠ, ইট, বালি, সিমেন্ট এবং গ্রামগুলোতে টিনের এর সাহায্যে তৈরি করা হয়।

শুধুমাত্র মানুষই নয় গৃহপালিত প,শু, গ,রু ছা,গল এদের জন্য ঘর তৈরি করা হয় । যাতে বিভিন্ন রকম বৃষ্টি ও ঝড়ের দিনে গৃহপালিত প,শু গুলোর জন্য নিরাপদ স্থান তৈরি করা যায়। গ্রামে যারা কৃষিকাজ করেন তাদের ঘর গুলো একটু অগোছালো হয় । চারিদিকে বিভিন্ন জিনিসপত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে। এসকল জিনিসপত্রগুলো অগোছালো থাকার কারণে এখানে বিভিন্ন ধরনের বিষাক্ত সা,প, পোকা মাকর আশ্রয় নেয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বিনোদনের পাশাপাশি আমাদের বিভিন্ন খবরা-খবর জানিয়ে থাকে। প্রায় সকল ক্ষেত্রেই বিভিন্ন ধরনের চলমান সার্বিক ব্যবস্থা সম্পর্কে তাৎক্ষণিক আমরা এর মাধ্যমে জানতে পারি। সময়ের সাথে এই তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমটি আরও বিস্তর ছড়িয়েছে। সকলেই যেকোনো তথ্য ও খবরা খবর জানার জন্য সবার আগে এ সোশ্যাল মিডিয়ায় আসে।

একই ধরনের খবর বিভিন্ন মাধ্যমে এখানে আসে তাতে সহজেই ওই বিষয় সম্পর্কে সম্পূর্ণ ও বিস্তারিত জানা যায়। সম্প্রতি একটি ভিডিও এভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে।যা অল্প কিছুদিনের মধ্যেই প্রচুর পরিমাণ ভাইরাল হয় এবং মানুষ বিস্ময়ের চোখে এটি দেখতে থাকে। ভিডিওটিতে একটি কৃষকের বাড়ী থাকে কিছু বিষাক্ত সা,প ধরার দৃশ্য দেখানো হয়। যা মুহূর্তে প্রচুর সাড়া ফেলে দেয়।

ভিডিওটি ছিল এরকম যে একটি কৃষকের বাড়ি, খুব বেশি আধুনিক নয় এমন একটি বাড়ি দেখানো হয়। যেখানে ঘরের ভেতর কিছু অগোছালো জিনিসপত্র থাকে। এক পাশে একটি স্তূপাকারে কিছু জ্বালানি রাখা আছে। এই জ্বালানি গুলো অনেকদিন ধরে পড়েছিল যার ফলে এতে একটি বিষাক্ত সা,প এসে বাসা বাঁধে। আমরা জানি সা,প এরকম জায়গায় থাকতে পছন্দ করে। কারণ একটি সা,প যখন নিরাপদে তার বাসস্থান বানাতে পারবে তখনই সেখানে সে তার বংশ বৃদ্ধির জন্য ব্যবস্থা করতে পারবে।

এ রকমই এই জায়গাটিতে সা,পটি বাসা বাঁধে। এক সময় কৃষক টি সা,পটি দেখতে পায় এবং যারা বন্য পশুপাখি অধিদপ্তরে কাজ করেন তাদেরকে অবহিত করেন। তারা এসে সা,পটিকে সে জায়গা থেকে বের করে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে সা,পটিকে বনে ছেড়ে দেওয়া হয়। আসলে এ ভিডিওটি খুবই অল্প সময়ের মধ্যে সকলের মধ্যে আলোড়ন সৃষ্টি করে এবং প্রচুর আলোচিত হয়। তাদের মন্তব্য গুলো ছিল অনেক দেখার মত।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ

Check Also

অভিনব পদ্ধতিতে বিষ ও যন্ত্র ছাড়া খুব সহজে ইদুর মারার ফাঁদ বানানো যায়, একবার দেখলে আপনি বানাতে পারবেন। রইলো ভিডিও সহ স্টেপ বাই স্টেপ

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইঁদুর একটি চতুর ও নীরব ধ্বংসকারী স্তন্যপায়ী প্রাণী। ইঁদুর প্রাণীটি ছোট হলেও ক্ষতির …