Breaking News

ক্লাসিকাল গানে নিখুঁত নাচ বৃদ্ধা মহিলার। বুড়ো বয়সেই এমন নাচ ঝড়ের গতিতে ভাইরাল নেট দুনিয়ায়। প্রশংসায় ভাসালেন নেটিজনরা।

strong>নিজস্ব প্রতিবেদন:সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে এমন সময় অনেক ধরনের ভিডিও ভাইরাল হয় যা দেখে মনে নতুন করে ভালো কিছু করার সাহস জেগে ওঠে। বলা যায় ইনস্পিরেশনাল ভিডিওগুলো মানুষের মনে গভীরভাবে রেখাপাত করে।

আর সেই কারণেই হয়তো দীর্ঘদিন ধরে ধুঁকতে থাকা মানুষটা হঠাৎ করে জীবনে ভালো কিছু করার লক্ষ্যে আবারো উৎফুল্ল হয়ে ওঠে। তাইতো সোশ্যাল মিডিয়ার জনপ্রিয়তা ঊর্ধ্বে
সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে “ভাইরাল” শব্দটার সঙ্গে আমরা সকলে খুব বেশি পরিচিত।

যখন কোন ছবি বা ভিডিও কিংবা খবর চারিদিকে ঝড়ের গতিতে ছড়িয়ে পড়ে। আর লাইক কমেন্ট শেয়ারের বন্যা বয়ে যায়, তখনই সেটা হয়ে যায় ভাইরাল। এইসব ভাইরাল ভিডিও, খবর কিংবা ছবি দেখে আমার সারাদিনের বেশ খানিকটা সময় নিশ্চিন্ত মনে কাটিয়ে দিতে পারি। অবসর সময়গুলো কেটে যায় সোশ্যাল মিডিয়ার পর্দায় চোখ রেখে।

সম্প্রতিক সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হলেন এক বৃদ্ধা মহিলা যার বয়স ৮০ বছর পেরিয়ে গিয়েছে। কিন্তু তবুও তার নাচ দেখে ভিরমি খাওয়ার জোগাড় তাবড় তাবড় যুবক-যুবতীরা। যে বয়সে মানুষ কোমরের যন্ত্রণা কিংবা হাঁটুর ব্যথায় কাহিল হয়ে পড়ে।

চেষ্টা করে সাংসারিক জীবন যাপন থেকে একটু মুক্তিলাভের,সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে এই বৃদ্ধা মহিলা নিজেকে প্রকাশ করলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় সাম্প্রতিক ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, একেবারে কঙ্কালসার চেহারার এক বৃদ্ধা মহিলা ডান্স করছেন রাস্তার মাঝে।

পরনে তার আটপৌরে করে পড়া একটি সবুজ রঙের শাড়ি।গায়ে নেই ব্লাউজ। তাতেই মাথার ঘোমটা টেনে রাস্তার মাঝে নাচ করতে দেখা গেল এই বৃদ্ধা মহিলাকে। মাথার চুল একেবারে সাদা। গায়ের ত্বক কুচকে গিয়েছে। চোয়ালে একটি দাঁতও অবশিষ্ট নেই।কিন্তু তাতে অবশ্য দমে যাননি ঠাকুমা।

ঠাম্মা তোমার বয়স পেরিয়ে গেছে আশি,কিন্তু এই ফোকলা দাঁতের হাসি দিয়েই মাত করে দিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়া। ঠাকুমার বয়স অনেক বেশি হলেও তার মধ্যেকার শক্তি এতটাই বেশি যে এই বয়সে এসেও তিনি ডান্স করছেন। বেশিরভাগ বাড়িতেই বৃদ্ধ মহিলাদের দেখা যায় এই বয়সের কাহিল হয়ে পড়েছেন।

দিনে রাতে ওষুধ খেয়ে বাতের ব্যথা নিরাময়ের চেষ্টা করেন তারা। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে একেবারে ব্যতিক্রমী এই ঠাকুমা।শুধু তাই নয় এদিন ডান্স পারফরম্যান্স এর জন্য ওই ঠাকুমার বেছে নিয়েছেন একেবারে হিন্দি একটি গান। টনি কক্করের গাওয়া গান “ধীমে ধীমে” গানে রাস্তার মাঝে জমিয়ে নেচেছেন এই ঠাকুরমা।

ঠাকুমার এই নাচ দেখতে হাজির হয়েছিল প্রচুর লোকজন। তারা সকলেই ঠাকুমার ডান্স দেখে রীতিমতো হকচকিয়ে গিয়েছেন।বুড়ো হাড়ে ভেলকিবাজি কিভাবে দেখানো যায় সেটা দেখিয়ে দিয়েছেন এই বৃদ্ধা মহিলা। অনেক বয়স হয়ে গিয়েছে এমন মানুষদের কাছে নতুন উত্তেজনা আর অনুপ্রেরণা হয়ে উঠেছেন এই মহিলা।

বয়সের গাছপাথর না থাকলেও তিনি একসময় যে খুবই শক্ত সমর্থ মানুষ ছিলেন, তা বোঝাই যাচ্ছে তার নাচ দেখে।“দা ভাইরাল স্টেশন”bনামক একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে সাম্প্রতিক পোস্ট করা হয়েছে এই ভিডিও। ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে ভিডিওটি।

বর্তমানে ভিডিওটির দর্শক সংখ্যা আড়াই লাখেরও বেশি। প্রচুর লাইক পড়েছে ভিডিওটিতে। কমেন্ট সেকশনে ঠাকুমাকে ভালোবাসা জানিয়েছেন অনেকে।

Check Also

বিদেশী জাতের এই ময়ূর পালন করে, রাতারাতি লাখপতি হয়ে গেলেন সুন্দরী যুবতী। রইল ভিডিও সহ ময়ূর পালনের যাবতীয় গোপন টিপস।

নিজস্ব প্রতিবেদন:প্রাচীনকাল থেকেই সুস্বাদু মাংস হিসেবে পরিগণিত হয়ে আসছে পাখির মাংস। এরই ধারাবাহিকতায় আধুনিক যুগের …