Breaking News

খুব সহজে ২ টি সিদ্ধ আলু আর 1 টি ডিম দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের নাস্তা, সবাই খুব পছন্দ করবে, রইল স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন: আলু দিয়ে তৈরি করা যায় নানা ধরনের দুর্দান্ত সব রেসিপি, প্রায় প্রত্যেকটি রেসিপি আলু ব্যবহার রয়েছে। আজকাল প্রায় সব রেস্টুরেন্টে আলু দিয়ে তৈরি সুস্বাদু ফাস্টফুড জাতীয় খাবার পাওয়া যায়। ফাস্টফুড ছাড়াও আরো দিয়ে নানান ধরনের রেসিপি তৈরি করা যায়,যে রেসিপিগুলো স্বাদে অনেক মজাদার হয়ে থাকে। আজকে আমরা এমন একটি রেসিপি নিয়ে হাজির হয়েছি।আলু এবং ডিম দিয়ে এই রেসিপিটি তৈরি করলে সকলেই পছন্দ করবে।

আলু এবং ডিম দিয়ে তৈরি এই অসাধারণ রেসিপি তৈরি করলে সকলেই পছন্দ করবে।এই অসাধারণ রেসিপি বিকেলে তৈরি করে বাড়ির সকলকে পরিবেশন করে সকলকে তাক লাগিয়ে দিন।খুবই সাধারণ ও সহজ পদ্ধতিতে আলু ডিম দিয়ে এই রেসিপিটি তৈরী করুন। এই রেসিপিটি বড় থেকে ছোট সকলের পছন্দ হবে। তাহলে চলুন জেনে নেই,কিভাবে তৈরি করতে হয় আলু ও ডিম দিয়ে এই রেসিপিটি।

উপকরণ সমূহ:,আলু।,ডিম।,আদা রসুনের বাটা,বেসন,লবণ,তেল,পেঁয়াজ কুচি,কাঁচামরিচ কুচি,হলুদের গুঁড়া ও মরিচ গুঁড়া,ধনিয়া পাতা কুচি,জিরা গুড়া।

রন্ধন প্রক্রিয়া: দুটি মাঝারি সাইজের আলু সেদ্ধ করে নিতে হবে। সিদ্ধ করা হয়ে গেলে সিদ্ধ করে আলু গুলোকে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। সিদ্ধ করা আলু গুলোকে ভালোভাবে পিষে দিতে হবে। পিসে রাখা আলু গুলোর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে ১/২ চা চামচ আদা রসুন বাটা, দেড় চামচ বেসন, স্বাদমতো লবণ, পেঁয়াজ কুচি, কাঁচামরিচ কুচি তারপরে মধ্যে ভেঙে দিয়ে দিতে হবে কাঁচা ডিম।

এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে সামান্য পরিমাণ হলুদ গুঁড়া এবং সামান্য পরিমাণ ধনিয়া পাতা কুচি। (ধনিয়া পাতা যদি হাতের কাছে না থাকে তাহলে সেটাকে না দিলেও চলবে)। এবার সবকিছু একসাথে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণটি যদি বেশি নরম হয়ে যায় তাহলে এর মধ্যে ১ চা চামচ বেসন দিয়ে নিতে পারেন মিশ্রনটিকে হালকা নরম করার জন্য। আলু ও ডিমের মিশ্রণ থেকে একেবারে শক্ত করে মেখে নেওয়া যাবে না। কিছুটা হালকা করে মেখে নিতে হবে এই মিশ্রণটি কে।

এরপর চুলায় কড়াইয়ে তেল গরম করে নিতে হবে।তেল গরম হয়ে গেলে এর মধ্যে আলু ও ডিমের মিশ্রনটিকে গোল গোল করে তেলের মধ্যে দিতে হবে। অথবা আপনার পছন্দমত করে যেকোনো আকারে এই মিশ্রণটি তেলের মধ্যে দিয়ে দিতে পারেন। আলু ও ডিমের মিশ্রণটি তেলে দেওয়া হয়ে গেছে, এগুলো ভালো করে উল্টে পাল্টে তেলের মধ্যে ভেজে নিতে হবে। আলু এবং ডিম এর এই মিশ্রণটি যদি শক্ত হয়ে যায়,তাহলে এই বড়া গুলো শক্ত হয়ে যাবে এবং খেতে মজা লাগবে না।

বড়াগুলো ভাজা হয়ে গেলে, এগুলোকে একটি প্লেটে উঠিয়ে রাখতে হবে। এরপর আবার চুলায় কড়াই দিয়ে তার মধ্যে তেল গরম করে নিতে হবে। গরম তেলের মধ্যে দিয়ে দিতে হবে আস্ত জিরা ও রসুন। এরপর এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে পেঁয়াজ কুচি। পেঁয়াজ কুচি যখন হালকা নিতিয়ে আসবে তখন এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে হলুদ মরিচের গুঁড়া, জিরা গুঁড়া,আদা রসুন বাটা ও স্বাদমতো লবণ।

মসলা গুলোকে কমানোর জন্য এর মধ্যে কিছুটা পানি দিয়ে মসলা গুলোকে কষিয়ে নিতে হবে। মসলাগুলো কে কষানো হয়ে গেলে এর মধ্যে কিছুটা পানি দিয়ে পানি গুলোকে কষানো মসলার সাথে মিশিয়ে নিতে হবে। এবং এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে চিরে রাখা কাঁচা মরিচ। মসলা মেশানো পানি গুলো কে কিছুক্ষণ জ্বাল করে নিয়ে একটা গ্রেভি তৈরি করে নিতে হবে। গ্রাভিটি তৈরি হয়ে গেলে এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে ভেজে রাখা বড়াগুলো।

বড়া গুলোকে গ্রেভির সাথে মিশিয়ে কিছুক্ষণের জন্য কড়াইয়ে ঢাকনা দিয়ে রান্না করে নিতে হবে। প্রায় ৭ থেকে ৮ মিনিট কম আঁচে রান্না করে নেওয়ার পর আমাদের রেসিপিটি তৈরি হয়ে যাবে। লক্ষ্য রাখতে হবে বড়া গুলো যাতে ভেঙে না যায়। আমাদের রেসিপিটি তৈরি হয়ে গেছে আশা করি আপনাদের সকলের ভাল লাগবে এবং রেসিপিটি ভালো লাগলে অবশ্যই বাসায় তৈরি করে দেখবেন। রেসিপিটি তৈরি করে বাড়ি এবং আত্মীয়-স্বজন সকলকে পরিবেশন করবেন।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ

Check Also

অভিনব পদ্ধতিতে বিষ ও যন্ত্র ছাড়া খুব সহজে ইদুর মারার ফাঁদ বানানো যায়, একবার দেখলে আপনি বানাতে পারবেন। রইলো ভিডিও সহ স্টেপ বাই স্টেপ

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইঁদুর একটি চতুর ও নীরব ধ্বংসকারী স্তন্যপায়ী প্রাণী। ইঁদুর প্রাণীটি ছোট হলেও ক্ষতির …