Breaking News

গভীর সমুদ্রে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ধরার দৃশ্য।যা দেখলে আপনি হয়তো অবাক হয়ে যাবেন ।নেট দুনিয়ায় ভাইরাল ভিডিও।

বন্ধুরা আজকে আমরা এই ভিডিওতে দেখতে যচ্ছি কিভাবে সহজ পদ্ধতিতে বরশি দিয়ে বিভিন্ন প্রকার মাছ শিকার করা যায়। এই পৃথিবীতে বিভিন্ন খাবারের মধ্য থেকে মাছ একটি আমাদের প্রিয় খাবার। আমরা মাছে ভাতে বাঙালি। মাছ ছাড়া বাঙালি কিছুই বুঝে না। আর মাছ শিকার করা মানুষের এটি একটি অন্যতম শখ। মাছ শিকার করা পছন্দ করে না এরকম লোক খুব কম পাওয়া যাবে। মাছ শিকার করতে সকলেরই ভালো লাগে। সেটা হোক ছোট আর বড় মাছ।

আমরা হয়তো অনেকেই পুকুরের মধ্যে মাছ ধরেছি ।কিন্তু বড় বড় সাগরের বড় নদীতে মাছ ধরতে পারিনি। তবে আজকে আমরা দেখতে যাচ্ছি কিভাবে বড় বড় সাগরে মাছ ধরা যায়। পুকুরে মাছ ধরা আর সাগরের মধ্যে মাছ ধরা উভয়টি এক নয়। প্রিয় বন্ধুরা আজকে আমরা এই ভিডিওতে দেখতে যাচ্ছি বিভিন্ন প্রজাতির মাছ যা আমরা কখনই দেখিনি| যা দেখলে আমরা আজকে অনেকেই অবাক হয়ে যাব। অনেকে ভাবতে শুরু করব দুনিয়ায় এত প্রজাতির মাছ রয়েছে ভিডিও না দেখলে তো হয়তো জানতে পারতাম না।

আমরা যারা সমুদ্রের আশেপাশে বসবাস করি তারা হয়তো কয়েকটি প্রজাতির মাছের নাম শুনে থাকি দেখে থাকি।কিন্তু যারা সমুদ্র দূরবর্তীতে অবস্থান করে তারা হাতে গোনা কয়েকটি মাছের নাম ছাড়া আর কোন মাছের নামই জানি না এবং চোখে দেখতে পাই না ।খাওয়া তো অনেক দূরের কথা। প্রিয় বন্ধুরা সময়ের আবর্তনে দিনদিন মাছধরা কমে যাচ্ছে। সকলে শহরমুখী হয়ে যাচ্ছে। আমরা এই ভিডিওতে দেখতে পাচ্ছি কাকুরা সমুদ্রের মধ্যখানে অবস্থান করছে মাছ শিকার করার জন্য।

সাগরে প্রচন্ড ঢেউ হচ্ছে।ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে তারা মাছ শিকার করছে। মাছ শিকার করার জন্য তারা প্রথমে একটি ভোট ভাড়া করে নেয়। ভোট নিয়ে সমুদ্রের মধ্যখানে চলে যায়।মধ্য খানে গিয়ে তারা বিভিন্ন ছোট প্রজাতির মাছ সুতো মধ্যে বেঁধে সমুদ্রের মাঝখানে ছেড়ে দেয়। এভাবে তারা অনেক টুপ ফেলতে থাকে।এক ঘন্টা পর তারা সেই সুতা গুলো টানতে শুরু করে বন্ধুরা পরেই দেখা যায় বিভিন্ন প্রজাতির মাছ উঠছে।কিছুক্ষণের মধ্যে তারা প্রচুর মাছ ধরতে পারল।

কী ভয়ঙ্কর এক অবস্থা সমুদ্রের চতুর্দিকে শুধু পানি আর পানি আর ঢেউ খেলছে। কিন্তু তাদের মাছ ধরার দৃশ্য ছিল অসাধারণ। যা আপনাকে মুগ্ধ করবে। তারা প্রথম পর্যায়ের মাছগুলো সংগ্রহ করে আবার তৃতীয় পর্যায়ে মাছ শিকার করার জন্য। বিভিন্ন প্রজাতির ছোট মাছকে সুতোর মধ্যে বেঁধে আবার নদীতে ছেড়ে দিল। বড় বড় মাছ কে বোকা বানানোর জন্য। সেই মাছগুলো তাদের খাবার মনে করে এসে খেয়ে চলে যেতে চায়। কিন্তু তারা আর যেতে পারেনা আটকা পড়ে যায়।

বর্তমানে অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়ার উপর নির্ভরশীল অর্থাৎ যে কোন প্রকার সংবাদ অথবা কোন প্রকার চলমান পরিস্থিতি জানতে সকলে সবার আগে সোশ্যাল মিডিয়া চেক করে থাকে। কারণ প্রায় সকল ধরনের সংবাদ ও চলমান পরিস্থিতি সম্পর্কে তাৎক্ষণিক জানার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া একটি অন্যতম যোগাযোগ মাধ্যম। হরহামেশাই সোশ্যাল মিডিয়াতে বিভিন্ন কিছু ভাইরাল হচ্ছে।আশা করছি আপনাদের এই ভিডিওটি দেখে অবশ্যই ভালো লেগেছে।

Check Also

ডুবার পানি শুকিয়ে যাওয়ায় আটকে গেল বড় মাছ, তিন বালক দারুন কায়দা করে ধরল, ভাইরাল সেই ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রাচীনকাল থেকেই বাঙালি জাতি কে মাছে ভাতে বাঙালি বলা হয়। বাঙালি মাছ খেতে …