Breaking News

গ্রামের বন্যার চমৎকার দৃশ্য একেছেন শিল্পী ! এমন সৌন্দর্য মন কেড়েছে নেটিজনদের। তুমুল প্রশংসা শিল্পীর।

নিজস্ব প্রতিবেদন:চিত্র আঁকা অনেক মানুষেরই পেশা আবার অনেকের আবেগ আবার অনেকের শখ। চিত্র আঁকতে আমরা মোটামুটি সবাই ভালবাসি।কিন্তু এটাও আবার সত্যি যে আমরা সবাই চিত্র আঁকতে পারিনা। একটি মানুষের মেধা শক্তির বিকাশ সিদ্ধ করার জন্য চিত্র অঙ্কন করা এটি একটি অন্যতম মাধ্যম।

বর্তমানে চিত্রাঙ্গন করতে সবচেয়ে বেশি ভালবাসে শিশুরা।চিত্রাংকন এখনো বিভিন্ন স্কুল প্রতিষ্ঠান শিক্ষা দেওয়া হয়। তো বন্ধুরা আজকের এই ভিডিওতে দেখব।কিভাবে একটি গ্রাম্য পরিবেশের চিত্র অঙ্কন করা হচ্ছে।আপনি এভাবে সহজে একটা চিত্র অঙ্কন করতে চান তাহলে প্রথমে আপনাকে কাজ করতে হবে সাদা একটি পেইজ নিতে হবে হাতে একটি পেন্সিল একটি কাটার।

এবং কিছু বিভিন্ন কালারের রং কলম নিবেন।কল্পনা থেকে অঙ্কন করা ভালো, কিন্তু সবকিছুই স্বতঃস্ফূর্ত ও খালি হাতে আঁকা সম্ভব নয়। মানুষের তৈরি বিভিন্ন জিনিস,যেমন যানবাহন এবং বাড়িঘর, বেশ কিছু নিয়ম-কানুন মেনেই তৈরি করা হয়। এইসব নিয়ম-কানুন গুলো আমাদের স্বাধীনভাবে আঁকার অন্তরায়।

আপনি নিশ্চয়ই লাইন অনুমান করে করে একটি বিল্ডীং আঁকতে পারবেন না—আপনাকে অবশ্যই কিছু নিয়মকানুন মানতে হবে এবং এই নিয়মগুলো বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে সংজ্ঞায়িত করা হয়।এই টিউটোরিয়ালে, আমি আপনাকে দেখাবো কীভাবে দুটি বিন্দুর দৃষ্টিকোণ থেকে ধাপে ধাপে একটি বাড়ি তৈরি করতে হয়।

আমি শুধু আপনাকে কি করতে হবে তাই বলবো না বরং পুরো প্রক্রিয়াটি ব্যখ্যা করে দেখিয়ে দিবো, কীভাবে কি করতে হবে।আপনি চাইলে আপনার নিজস্ব অথবা যেকোনো বাড়ির ছবি এখানে ব্যবহার করতে পারেন। আমরা এই ছবিটি পুরোপুরি কপি করবো না, কিন্তু, আমরা কি আঁকতে যাচ্ছি তা বোঝার জন্য আমাদের একটি ভিত্তি দরকার।

তাই এই চিত্রটি নিখুঁত হতে হবে এমন কোনও কথা নেই—আমরা আমাদের নিজস্ব দৃষ্টিভঙ্গি ফুটিয়ে তুলবো!আপনি এজন্য যেকোনো টুল ব্যবহার করতে পারেন, কিন্তু এজন্য কোনও ড্রয়িং সফটওয়্যার ব্যবহার করা সবচেয়ে ভালো—চিত্রানুপাত তৈরির জন্য অনেক ভালো অংকন দক্ষতার প্রয়োজন নেই, তাই আপনি খুব সহজেই এ কাজে মাউস ব্যবহার করতে পারেন।

আপনি যদি পুরনো পদ্ধতিতে আঁকতে চান, তাহলে নিশ্চিত করুন, যেন আপনার শীটটি কাংখিত অঙ্কনের তুলনায় বেশ বড় সাইজের হয়। এবং একই সাথে একটি লম্বা রুলার ব্যবহার করতে ভুলবেন না!
ধাপ ১দিগন্ত বরাবর লাইন থেকে শুরু করুন। যখন এটার উপরে কিছু থাকে, তখন উপর দিকে লক্ষ্য রাখুন। যখন এটার নীচে কিছু থাকে, তখন নীচের দিকে লক্ষ্য করুন।

ধাপ ২আমরা বিল্ডিংটির দুই দিক দৃশ্যমান করতে চাই: ডান দিক এবং সামনের দিক। এ দুটি দিকের একটি সাধারণ মাত্রা আছে, তা হচ্ছে: তাঁদের উচ্চতা। দুই দিক থেকে চিত্রায়নে, উচ্চতাইসাধারনত সম্পূর্ণ উলম্ব রেখায় অবস্থিত, তাই আমাদের এজন্য কোনও অদৃশ্য বিন্দু আঁকা প্রয়োজন নেই।যাই হোক, তারপরও এটা গুরুত্বপূর্ণ যে আমরা কোথায় এই উচ্চতাটি স্থাপন করতে যাচ্ছি।

দিগন্ত রেখার কেন্দ্রটি দর্শনেরও কেন্দ্র। আপনি যদি পার্শ্ব রেখাটি এখানে স্থাপন করেন, তাহলে উভয় দিকই সমানভাবে দৃশ্যমান হবে। আপনি যদি এটাকে কিছুটা বামে স্থাপন করেন, তাহলে পার্শ্বের কারণে সামনের দিকটি ভালভাবে দৃশ্যমান হবে। এবং এটাই আমরা চাই!

ধাপ ৩চিত্রানুপাত সমান্তরাল রেখাগুলোকে অভিসারী রেখায় পরিণত করে। তাহলে কীভাবে তাঁদেরকে একত্রিত করবেন? এটা সম্পূর্ণই আপনার উপর নির্ভর করে। আপনি যত বেশী কোনও পার্শ্ব দেখতে চাইবেন, অদৃশ্য বিন্দুটিও ততটা সরে যাবে।এভাবে আপনি আমাদের ভিডিওটি দেখে চিত্র আঁকতে পারেন।

Check Also

সমুদ্রের নীল তিমি কত টা ভয়ংকর হয়! সমুদ্র থেকে লাফ দিয়ে বক শিকার করে নেয় নীল তিমি,নেট দুনিয়াই ভাইরাল সেই ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: মানুষ সামাজিক জীব।প্রাকৃতিক পরিবেশের মধ্যে সে জন্মে এবং সেখানেই বড় হতে থাকে।ফলে প্রকৃতির …