Breaking News

দোকানের মতো বাড়িতেই গোলাপজাম মিষ্টি তৈরি করুন খুব সহজে, নরম তুলতুলে স্বাদে হবে একদম মুখে লাগার মত, রইল স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাঙ্গালীদের ঐতিহ্যবাহী খাবার গুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে মিষ্টি। আমাদের ধর্মীয় কিংবা বিভিন্ন বাৎসরিক অনুষ্ঠানগুলোতে মিষ্টি না থাকলেই নয়। সন্দেশ দুধের ছানা দিয়ে তৈরি এক ধরনের মিষ্টান্ন খাবার। পুষ্টি গুণাগুণের দিকে এই খাবারটি অতুলনীয় একটি খাবার। বাঙালির উৎসব আয়োজনে এই গোলাকার উপাদেয় খাবারটির ব্যবহার অনেক প্রাচীন কাল থেকেই হয়ে আসছে। বিভিন্ন এলাকার মিষ্টি তৈরির কারিগরেরা এই মিষ্টি তৈরির ব্যাপারটাকে একটা শৈল্পিক ব্যাপারে পরিণত করে ফেলেছে।

বর্তমানে প্রায় সকল মিষ্টির দোকানে এই খাবারটি সচরাচর পাওয়া যায়। বাঙ্গালীদের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে এর চাহিদা বেড়েই চলেছে। তবে বাহিরের মিষ্টি গুলো যদিও অনেক মজাদার হয় তবুও তা না খাওয়াই উত্তম। কেননা বাইরের মিষ্টি গুলোতে বিভিন্ন প্রকার নিম্নমানের এবং ভেজাল উপকরণ প্রয়োগ করা হয়ে থাকে। যা স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। আজকের ভিডিওটিতে কিভাবে খুব সহজে কম সময়ে –

এবং খুব অল্প উপকরনে ঘরেই মিষ্টি তৈরি করা যায় তার রেসিপির চিত্র ধারণ করা হয়েছে। আজকের এই মিষ্টিটি তৈরি করতে ভিন্ন রকমের উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে। চলুন দেরী না করে দেখে নেওয়া যাক কি কি উপাদান এবং কোন পদ্ধতিতে এই মজাদার মিষ্টি তৈরি করা হয়েছে। উপকরণঃ ,দুধ ,এলাচের গুঁড়া ,ময়দা ,ঘি ,বেকিং পাউডার ,বেকিং সোডা

প্রণালীঃ গোলাপজাম মিষ্টি তৈরি করার জন্য প্রথমে দুধের ক্ষীর তৈরি করে নিতে হবে। ক্ষীর তৈরি করতে প্রথমে একটি পাত্রে পরিমাণমতো দুধ নিয়ে জ্বাল দিতে হবে। জ্বাল দেওয়ার সময় দুধকে ভালোভাবে নাড়তে হবে কেননা না নাহলে তোদের উপরে সর এবং নিচে তলানি জমে যেতে পারে। এক্ষেত্রে ক্ষীর ঘন হতে সময় লাগে বেশি। নেড়েচেড়ে দুধটুকু একদম শুকিয়ে নিতে হবে। শুকিয়ে গেলেই ক্ষীর তৈরি হয়ে যাবে ।

তারপর ক্ষীর টুকু নিয়ে একটি পাত্রে ঠান্ডা করে নিতে হবে। তারপর এর মধ্যে সামান্য পরিমাণে এলাচের গুঁড়া এবং সামান্য পরিমাণে ময়দা দিয়ে ভালো করে মিক্স করে নিতে হবে। তারপর আর মধ্যে সামান্য পরিমাণে ঘি , বেকিং সোডাএবং বেকিং পাউডার দিতে হবে। আপনারা চাইলে কি এর পরিবর্তে বাটার ব্যবহার করতে পারেন, কিন্তু এতে কোন মতেই তেল ব্যবহার করা যাবে না। বেকিং পাউডার মিষ্টি গুলোকে ফুলতে সাহায্য করবে। তারপর মিশ্রণটিকে 10 মিনিটের মত ঢেকে রাখতে হবে।

তারপর হাত দিয়ে মিষ্টি গুলোর সেপ তৈরি করে নিতে হবে। গোল কিংবা লম্বা আপনার ইচ্ছা মত এই সেপ তৈরি করে নিতে পারেন। তারপর এগুলো তেলে আস্তে আস্তে ভেজে নিতে হবে। এক্ষেত্রে চুলার আচ টুকু কমিয়ে রাখতে হবে কেননা জ্বাল বেশি দিলে মিষ্টিগুলো উপর থেকে ‍পুড়ে যেতে পারে এবং ভিতর কাচার রয়ে যেতে পারে। বৃষ্টি গুলো কিভাবে লাল লাল করে ভেজে নিতে হবে।

তারপর চিনির সিরা তৈরি করতে হবে। একটি পাত্রে পরিমাণমতো পানি দিয়ে এরমধ্যে পরিমাণমতো চিনি দিয়ে দিতে হবে। এবং কয়েকটি এলাচ দিলে ভালো হয় এতে ভালো ঘ্রাণ হয়। তারপর চিনি গুলো যখন গলে যাবে তখন এর মধ্যে মিষ্টিগুলো ছেড়ে যেতে হবে। তারপর কিছুক্ষণ ঢেকে রেখে চুলা থেকে উঠিয়ে নিতে হবে। এবং ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করতে পারেন। এভাবেই তৈরি হয় গেল সুস্বাদু গোলাপজাম মিষ্টি।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ

Check Also

খুব সহজে ২ টি সিদ্ধ আলু আর 1 টি ডিম দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের নাস্তা, সবাই খুব পছন্দ করবে, রইল স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন: আলু দিয়ে তৈরি করা যায় নানা ধরনের দুর্দান্ত সব রেসিপি, প্রায় প্রত্যেকটি রেসিপি …