Breaking News

প্রিয় মানুষটি মিথ্যা বলছে না সত্যি? বুঝবেন যেসব লক্ষণে

কোন‌ ব্যক্তির বাচনভঙ্গি, কথা বলার সময় কোন দিকে তাকাচ্ছেন কিংবা কথা বললে গলার স্বর বদলে যাচ্ছে কি না, তা দেখেই নাকি বলে দেওয়া যেতে পারে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি সত্যি বলছে না মিথ্যা। এছাড়া আরও কিছু লক্ষণ আছে, আসুন জেনে নেই…

হাত নাড়ানো: সাধারণত যখন কোনো মানুষ সত্যি কথা বলেন তখন কথা বলার আগে বা কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে হাতের অঙ্গভঙ্গি বদল হয়। কিন্তু মিথ্যে কথা বললে কথা বলার কিছুক্ষণ পর বদল হয় হাতের অঙ্গভঙ্গি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মিথ্যা কথা বলার অর্থ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে কোন কাল্পনিক ঘটনা নির্মাণ করতে হচ্ছে। মস্তিষ্কের স্বাভাবিক অনুসারে ক্রিয়া কিছুটা ব্যাহত হয় সে কারণে দেরি হয় হাতের ভঙ্গিতে।

দৃষ্টি: অনেক সময় যারা মিথ্যা কথা বলেন তারা সরাসরি চোখের দিকে তাকাতে অস্বস্তিবোধ করেন। মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের একটা গবেষণা বলছে, ৭০ শতাংশ ক্ষেত্রে মিথ্যা কথা বলার সময় সরাসরি চোখে চোখ রাখতে সংকোচ বোধ করেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি।

নড়াচড়া: কথা বলার সময় সামনে পিছনে দোলা কিংবা একদিকে ঘাড় কাত করে রাখা মিথ্যা কথা বলার সংকেত হতে পারে। পাশাপাশি কোন কোন ব্যক্তি কোন এক দিকের পায়ে ভর দিয়ে দাঁড়ান বারবার ভিন্ন ভিন্ন পায়ে ভর দিয়ে দাঁড়ানো‌ও মিথ্যে কথা বলার লক্ষণ হতে পারে।

মুখভঙ্গি: কারো কারো মতে, মুখ ভিতরের দিকে ঢুকিয়ে নেয়া কিংবা ঠোঁট চেপে রাখার মতো বিষয় মিথ্যে কথা বলার লক্ষণ হতে পারে। বারবার ঢোক গেলা ও জিহ্বা মুখের ভিতর ঢুকিয়ে নেওয়াও মিথ্যে কথা বলার লক্ষণ হতে পারে।

গলার স্বর: কথা বলার সময় গলার স্বরের আকস্মিক পরিবর্তন মিথ্যে কথা বলার ইঙ্গিত হতে পারে। অনেকের মতে, মানসিক চাপ বৃদ্ধি পেলে কিছু কিছু ক্ষেত্রে স্বরযন্ত্র শক্ত হয়ে যেতে পারে। তাই মিথ্যা কথা বলার সময় যদি কারো মানসিক চাপ তৈরি হয় তবে কথা বলতে গেলে গলার স্বর মোটা কিংবা সরু হয়ে যেতে পারে।

তবে এই সব‌ই তত্ত্বাগত কথা। বাস্তবে এই ধরনের লক্ষণ দেখে কোন ব্যক্তি সত্যি বলছেন না মিথ্যা তা নিশ্চিত ভাবে বলা খুবই কঠিন।

Check Also

প্রথম সন্তানের সাত মাসের মধ্যেই দ্বিতীয়বার মা হলেন বাঙালি অভিনেত এক পলকে দেখে নিন নায়িকার পরিচয়

প্রথমবার কৃত্রিম পদ্ধতিতে (IVF) পেয়েছিলেন মাতৃত্বের স্বাদ, তবে এবার সাধারণ উপায়েই দ্বিতীয়বার মা হলেন ‘বিগ-বস’ …