Breaking News

বাশঁ দিয়েই খুব সহজেই বানিয়ে ফেলুন সোফা, দেখতে হবে সুন্দর ও গুনগত মানের টেকসই রইল স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: অনেকেই মনে করেন ঘর সাজানো মানেই বিশাল খরচ। স্বল্প খরচেই সাজিয়ে তুলতে পারেন স্বপ্নের ঘরটি। আপনার একটু খানি বুদ্ধির জোরেই সাজিয়ে যাবে ঘরটি। চলুন জেনে নিয়ে স্বল্প খরচে রুচিসম্মতভাবে কেমন করে সাজিয়ে তুলবেন আপনার স্বপ্নের ঘরটি।শুধুমাত্র একটু বুদ্ধি খাটালেই আমরা বাজারের দামি দামি আসবাব পত্র বর্জন করে নিজেই তৈরি করে নিতে পারি কম খরচে ঘর সাজানোর জন্য দেশীয় উপকরণের জুড়ি নেই।

আপনার ঘর সাজানোর ভালো থিম হতে পারে বাঁশ। বাঁশের সোফা সহজলভ্য, দামেও সাশ্রয়ী। চাইলে ইচ্ছেমতো ডিজাইন দিয়ে তৈরি করে নিতে পারেন। বসার ঘরের একপাশে জায়গা করে শীতল পাটি বিছিয়ে দিন। এর ওপর ফ্লোরিং করে বাড়তি বসার ব্যবস্থা করতে পারেন। ঘরের খালি দেয়ালে বাঁশের বেড়া ফ্রেম করে ঝুলিয়ে রাখতে পারেন। কর্নারে একটা বাঁশের শেলফ করে তাতে দেশীয় উপকরণের শোপিস রাখুন।

আজকের এই ভিডিওটিতে দেখানো হয়েছে কিভাবে খুব কম খরচে অল্প সময়ে এবং খুব সহজভাবে সোফা তৈরি করা যায় বাঁশ দিয়ে। বর্তমানে বাজারে বাঁশের বিভিন্ন ফার্নিচার পাওয়া যায়। হস্তশিল্প হিসেবে এই ফার্নিচারগুলোর দাম অনেক বেশি। কিন্তু আমরা যদি একটু চেষ্টা করি আমরা নিজে নিজেই এই ধরনের বাঁশের ফার্নিচার তৈরি করতে পারে। আজকে আমি আপনাদেরকে দেখাবো কিভাবে খুব সহজেই বাঁশ দিয়ে ফার্নিচার তৈরি করবেন।

তৈরি করন পদ্ধতিঃবাঁশের ফার্নিচার তৈরি করতে যে বাশ ব্যবহার করা হয় তাকে মুলিবাঁশ বলা হয়। অত অন্যান্য এলাকায় আর ভিন্ন নাম ব্যাবহার হয়ে থাকতে পারে। প্রথমত মোটা-চিকন অনেকগুলো মুলিবাঁশ জোগাড় করতে হবে। সবার প্রথমে সুপার চারটে পায়া তৈরি করতে হবে। নির্দিষ্ট একটি মাপ নিয়ে পেছনের পা গুলো একটু বড় রাখতে হবে এবং সামনের পা গুলো একটু ছোট করে নিতে হবে। তারপর বসার মাচা বরাবর চারটি ছিদ্র করতে হবে।

ছিদ্র করার জন্য ধারালো দা কিংবা ছুরি ব্যবহার করতে পারেন। ছিদ্র গুলো এমন ভাবে করতে হবে যেন ছিদ্র দিয়ে যে বাঁশ প্রবেশ করানো হবে এর বরাবর হতে হবে। এবং ছিদ্রগুলো মসৃণ হতে হবে। তারপর মাচার জন্য চারটি বাঁশ কাটতে হবে। সোফার প্রস্থ এবং দৈর্ঘ্যের মাপ নিয়ে সামনে এবং পেছনের দুটোই বড় এবং দুই পাশের দুইটা ছোট করে কাটতে হবে। এক্ষেত্রে সামনে এবং পেছনের বাঁশ দুটোকে ছিদ্র করে পায়া গুলোর মধ্যে আটকে দিতে হবে।

তারপর বসার জন্য মাচা তৈরি করতে হবে। মাচা তৈরি করার জন্য বাঁশের পাতলা সিট তৈরি করতে হবে। এক্ষেত্রে সেট গুলো খুবি মসৃন ভাবে কাটতে হবে যেন বসতে কোন অসুবিধা না হয়। তারপর শিট গুলো মাচার সামনে এবং পেছনের বাঁশ দুটির মধ্যে আটকে দিতে হবে যেন নিচে পড়ে না যায়। তারপর এই শীত গুলোর নিচে দিয়ে আরো কয়েকটি বাস লম্বালম্বিভাবে ছিদ্র করে আটকে দিতে হবে। কেননা সিট গুলো খুবই পাতলা হওয়ায় নিচে লম্বালম্বি বাঁশ ব্যবহার না করলে মানুষের ভার বহন করতে পারবে না।

তারপর হেলান দেওয়ার জন্য বাঁশ কেটে কিউব আকারে কয়েকটি ঘর করে নিতে হবে। যেন হেলান দিয়ে বসা যায়। তারপর মাচার একটু উপরে দুই মাথায় দুটি হাতল তৈরি করতে পারে। হাতল গুলোর দুই মাথায় ছিদ্র করে সামনে এবং পেছনের পায়া দুটির মধ্যে ঢুকিয়ে দিতে হবে। এ পদ্ধতিতে আপনারা চাইলে খুব সহজেই বাঁশের সোফা তৈরি করতে পারেন। তবে তৈরি করতে এই স্টেপ বাই স্টেপ গুলো ফলো করার সাথে সাথে ভিডিওটি দেখতে হবে।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ

Check Also

ডুবার পানি শুকিয়ে যাওয়ায় আটকে গেল বড় মাছ, তিন বালক দারুন কায়দা করে ধরল, ভাইরাল সেই ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রাচীনকাল থেকেই বাঙালি জাতি কে মাছে ভাতে বাঙালি বলা হয়। বাঙালি মাছ খেতে …