Breaking News

ভারতে সর্বপ্রথম সমুদ্রের নীচ দিয়ে ছুটবে বুলেট ট্রেন, গভীরতা শুনলে ‘হাঁ’ হয়ে যাবেন

প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের আমেদাবাদ থেকে মুম্বাইয়ের বুলেট রেল প্রকল্পখাতে এবার জোরকদমে প্রস্তুতি শুরু করল কেন্দ্রীয় সরকার। জানা যাচ্ছে,মুম্বাই এবং আহমেদাবাদের মধ্যে 508 কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এই দূরত্বকে মাত্র দুই ঘন্টায় কভার করবে এই বুলেট ট্রেন। প্রকল্পখাতে মোদি সরকারের তরফে খরচ করা হবে 1.08 লক্ষ কোটি টাকা। জানা যাচ্ছে,এই প্রকল্প খাতে নির্মাণ সম্পন্ন হলে ভারত সারা বিশ্বে একটি নজির গড়বে!

সূত্র মতে,ন্যাশনাল হাই স্পিড রেল কর্পোরেশনের আন্ডারে মুম্বাই থেকে আমেদাবাদ এর মধ্যে মোট 12টি স্টেশন তৈরি করা হবে। আসন্ন এই বুলেট ট্রেনের সর্বোচ্চ গতিবেগ হবে 350 কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা এবং গড় গতিবেগ হবে 320 কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা। অস্ট্রিয়ান টানেলিং মেথডের ব্যবহার করে তৈরি করা এই 21 কিমি টানেল প্রায় 25 থেকে 65 কিলোমিটার গভীর হবে।

এই টানেলের সূচনা হবে বান্দ্রা-কুরলা কমপ্লেক্স আন্ডারগ্রাউন্ড স্টেশনে। এরপর থানে এলাকার দিকে ধীরে ধীরে এগিয়ে যাবে এই ট্রেনের লাইন। তবে এই টানেলের গভীরতম অবস্থান হবে 114 মিটার গভীরে শিলপাটার কাছে পারসিক পাহাড়। 13.1 মিটার ব্যাসের এই টানেল কাটার জন্য কাটার হেড TBM ব্যবহার করা হবে এবং চ্যানেলটিতে ট্রেন আসা-যাওয়ার জন্য মোট দুটি লাইন ব্যবহৃত হবে।

আন্ডারগ্রাউন্ড রুটে এই টানেলটি তৈরি হলে ভারতে সর্বপ্রথম সাগরের নিচে রেলপথ সুচিত হবে। যদিও ন্যাশনাল high-speed রেল করিডোর এর পক্ষ থেকে বুলেট ট্রেনের জন্য 21 কিমি লম্বা টানেলের দরপত্র হাকা হয়েছে যার জন্য ব্যবহার করা হবে অস্ট্রিয়ার টানেলিং মেথড এবং টানেল বোরিং মেশিন। এই টানেলটির 7 কিলোমিটার থাকবে জলের ভেতরে।

Check Also

জরুরি টাকার প্রয়োজনে একদম কম দামে বিক্রি হবে ২ কাটার উপর সম্পূর্ন তৈরি করা বাড়ি, রইল ফোন নম্বার যাবতীয় তথ্য!

নিজস্ব প্রতিবেদন:আমরা আমাদের বাসস্থান হিসেবে খুব কম মূল্যে অধিক সুবিধাজনক বাসস্থান খুঁজে থাকি। এমন বাসস্থান …