Thursday , June 24 2021
Home / Lifestyle / মিঠুন চক্রবর্তীর বাড়ি নিরাপত্তায় 76 টি কুকুর মোতায়েন করা আছে এবং তাদের জন্য আছে বড় AC রুম

মিঠুন চক্রবর্তীর বাড়ি নিরাপত্তায় 76 টি কুকুর মোতায়েন করা আছে এবং তাদের জন্য আছে বড় AC রুম

কুকুর হলো মানুষের সবচেয়ে অনুগত বন্ধু এবং এই কথাটির মধ্যে কতটা সত্যতা সেটা আমরা সকলেই জানি। এই কারণেই অনেকে নিজের বাড়িতে কুকুর রাখেন। এই কুকুরটি কেবল তাদের বাড়িটিকে সুরক্ষিত করে না তবে তাদের মালিকের সংবেদনশীল সমর্থক হয়। কুকুরের সাথে থাকলে মেজাজ সতেজ থাকে এবং টেনশন থাকে না।

লোকেরা সাধারণত তাদের বাড়িতে একটি বা দুটি কুকুর রাখে তবে আজ আমরা আপনাকে এমন একজন বলিউড অভিনেতার সাথে পরিচয় করিয়ে দেব যিনি তাঁর বাড়িতে 76 টি কুকুর রেখেছেন। এই তারকাটি আর কেউ নন বলিউডের ডিস্কো ড্যান্সার মিঠুন চক্রবর্তী। মিঠুন অনেক ধনী ব্যক্তি এই কারণেই তিনি এতগুলি কুকুর রাখার সামর্থ্য রাখে।

সূত্র অনুযায়ী মিঠুনের বার্ষিক টার্নওভার প্রায় 240 কোটি টাকা। মিঠুন বর্তমানে চলচ্চিত্র জগত থেকে দূরত্ব তৈরি করেছেন তবে তিনি বিভিন্ন হোটেলের মাধ্যমে এই অর্থ উপার্জন করেন। আপনাদের তথ্যের জন্য বলে দিয়েছে মিঠুনের অনেকগুলি হোটেল রয়েছে মিঠুনের মনার্ক গ্রুপের অধীনে তাদের বেশিরভাগই এখান থেকে আসে।

আমরা এখানে মিঠুন এবং তার কুকুরের প্রতি গভীর ভালবাসার কথা বলছি। মুম্বাইতে মিঠুনের দুটি বাড়ি রয়েছে একটি বাড়ি বান্দ্রায় এবং অন্যটি মুড দ্বীপে। মিঠুনের মুম্বাইয়ের বাড়িতে মোট 38 টি কুকুর রয়েছে। সে কুকুর খুব ভালোবাসে। মিঠুন কুকুরদের তদারকি করে এমন একটি এনজিও ডগ কেয়ার সেন্টার ক্যানেল ক্লাব অফ ইন্ডিয়া যোগ দিয়েছেন।

কুকুর ছাড়াও মিঠুনের বাড়িতে অনেক পাখিও রয়েছে। এটি থেকে আপনিও নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন মিঠুন একজন পশুপ্রেমী ব্যক্তিত্ব। মজার বিষয় মিঠুন দার বাড়িতে সমস্ত প্রাণী কে একটি এসি ঘরে রাখেন।দিনের বেলায় সমস্ত কুকুরকে দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখা হয় এবং রাতের বেলা খোলা রেখে দেওয়া হয়। অনেক কুকুর থাকার কারণে মিঠুনের বাড়ি মুম্বাইয়ের সবচেয়ে নিরাপদ বাড়ি বলে মনে করা হয়।

মিঠুনের মুম্বাইয়ের বাড়ি ছাড়াও তার উটির বাড়িতে 76 টি কুকুর রয়েছে। এমতাবস্থায় মিঠুন যখনই রুটির বাড়িতে যায় সেইখানে এই কুকুরদের সাথে তিনি ভালো সময় কাটান। এটি বেশ ভালো বিষয় যে মিঠুনের মতন তারকারা তাদের অর্থ সঠিকভাবে ব্যবহার করছে।তারা তাদের প্রাণীদের প্রতি ভালোবাসার সমাজ একটি ভালো বার্তা দিচ্ছে।

ওয়ার্ক ফ্রন্টের কথা বললে মিঠুনকে শেষবার দেখা গিয়েছিল 2015 সালের হাওয়াইন ছবিতে। তারপর থেকে তিনি চলচ্চিত্র থেকে দূরে রয়েছেন। মিঠুন এর বর্তমান বয়স 67 বছর এমন পরিস্থিতিতে তিনি আর বেশি ছবি করতে চান না। তিনি তার স্কুল, তার পরিবার এবং পশুদের সাথে সর্বাধিক সময় ব্যয় করে। আপনারা কিভাবে মিঠুনের সাথে কুকুরের এই অনুভূতি অনুভব করছেন তা মন্তব্য আমাদের জানান। আপনিও কি কুকুর পুষতে ভালোবাসেন?

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

Check Also

মা, আমি বিয়ে করতে চাই, বয়স তো ২২ পেরিয়ে গেছে

মা,আমি বিয়ে করতে চাই। বয়স তো ২২ পেরিয়ে গেছে। আর কত?-আমার মুখের এই কথাটা শুনে ...

You cannot copy content of this page