Breaking News

শীতের ঘন কুয়াশার ভিতরে কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরার ভিডিও নিয়ে মাতল নেটপাড়া। অভিনব পদ্ধতিতে এই মাছ ধরার ভিডিও তুমুল ভাইরাল!

নিজস্ব প্রতিবেদন:আমরা অনেকেই মাছ ধরতে পছন্দ করে। আবার অনেকে মাছ ধরা দেখতে পছন্দ করি। বর্তমানে বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে সচরাচরই বিভিন্ন ভাবে মাছ ধরার ভিডিও ভাইরাল হয়ে থাকে। আমরা খুব সহজেই দেখতে পারি। আর বাঙালি হয়ে মাছ ধরতে পারে না এমন মানুষ খুব কমই আছে।

বাঙালি জাতির সাথে মাছ ওতপ্রোতভাবে জড়িত। মাছ ছাড়া বাঙ্গালীদের যেমন একটা দিনও চলে না তেমনি গ্রামে বসবাসকারী বাঙালিরা মাছ ধরা ছাড়া একটা দিনও চলে না। দিনের একটা অংশ মাছ ধরার মাধ্যমে কাটিয়ে দেয় গ্রামে বসবাসকারী বাঙালিরা। মাছ ধরা যেমন একদিক দিয়ে আনন্দ দেয় তেমনি পারিবারিক মাছের চাহিদা টাও খুব সহজে মিটে যায়।

তবে যাদের বাড়ির আশেপাশে বিভিন্ন নদ নদী বা খাল-বিল রয়েছে তারাই মাছ ধরার আনন্দটা সবসময় করতে পারে। গ্রামের এই খাল-বিল নদীগুলোতে মাছ ধরতে বিভিন্ন রকম দেশীয় সরঞ্জাম ব্যবহার করা হয়। তবে বর্তমানে প্রযুক্তির অগ্রগতির ফলে এই মাছ ধরার সরঞ্জাম গুলো বিভিন্নভাবে উন্নত হয়ে যাচ্ছে। যেগুলো ব্যবহারের ফলে খুব সহজেই অল্প সময়ে বেশি মাছ ধরা সম্ভব।

তবে বর্তমানে অনেক মানুষ আছে যারা শখের বসে মাছ ধরে। বিশেষ করে যারা শহরে বসবাস করে তারা মাঝেমধ্যে বিভিন্ন অত্যাধুনিক সরঞ্জাম নিয়ে নদী কিংবা খাল বিলের ধারে মাঝেমধ্যে মাছ ধরতে যায়। অনেক সময় শহর এলাকায় নদ-নদী খাল-বিল এর অভাবে শখের বশেও মাছ ধরাটাও সম্ভব হয়ে ওঠেনা। কেননা শহরাঞ্চলে খাল-বিল সচরাচর পাওয়া যায় না।

তবে গ্রাম অঞ্চলগুলোতে মাছ ধরার প্রচুর পরিমাণে জায়গা পাওয়া যায়। যার মাধ্যমে চাইলেই যেকোনো সময় বিভিন্ন সরঞ্জাম ব্যবহার করে মাছ ধরা সম্ভব। আজকের এই ভিডিওটিতে একটি ছেলের মাছ ধরার চিত্র ধারণ করা হয়েছে। যা নেট দুনিয়ায় প্রচুর পরিমাণে ভাইরাল হয়েছে। পৃথিবীতে একটি ছেলে একটি ব্যাগ নিয়ে হাওরে যায় মাছ ধরার জন্য।

সেখানে কিছু উঁচু স্থানে অল্প পরিমাণে পানি আটকে থাকে। এবং সে গিয়ে দেখতে পারি অল্প পরিমাণে পানি গুলোর মধ্যে বিভিন্ন দেশীয় মাছ আটকে আছে। এবং সে একটি একটি করে মাছগুলো ধরে তার ব্যাগে করে নিয়ে যায়। মাছগুলো সাধারণত বন্যার পানির সাথে উপরে উঠে যায়। বন্যার সময় যখন আস্তে আস্তে পানি উঁচু স্থানে উঠে যায় তখন পানির সাথে বিভিন্ন মাছও উপরে উঠে যায়।

এবং বৃষ্টি কমলে যখন বন্যার পানি আস্তে আস্তে নিচে যেতে শুরু করে তখন কিছু পানি রাস্তা না পেয়ে উঁচু স্থানেই আটকে থাকে। সেই প্রাণীর সাথে কিছু মাছ রাস্তা না পেয়ে নিচে নামতে না পেরে উপরে আটকে পড়ে। এবং সেই সময় খুব সহজেই অল্প পানিতে এই মাছগুলো ধরা যায়। শুধুমাত্র আমরা যারা এলাকাতে বসবাস করে তারা মাঝেমধ্যে বন্যা হলে এই পদ্ধতিতে মাছ ধরতে পারি।

Check Also

বিদেশী জাতের এই ময়ূর পালন করে, রাতারাতি লাখপতি হয়ে গেলেন সুন্দরী যুবতী। রইল ভিডিও সহ ময়ূর পালনের যাবতীয় গোপন টিপস।

নিজস্ব প্রতিবেদন:প্রাচীনকাল থেকেই সুস্বাদু মাংস হিসেবে পরিগণিত হয়ে আসছে পাখির মাংস। এরই ধারাবাহিকতায় আধুনিক যুগের …