Breaking News

BCCI-এর সভাপতি পদ থেকে শীঘ্রই ইস্তফা দিতে পারেন সৌরভ গাঙ্গুলী, জল্পনা সোশ্যাল মিডিয়ায়

সমস্ত জল্পনার পরিসমাপ্তি ঘটিয়ে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট পদ থেকে খুব শীঘ্রই ইস্তফা দিতে পারেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী। বিষয়টি বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনার অন্যতম কেন্দ্র বিন্দু হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমনিতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি হিসেবে সৌরভ গাঙ্গুলীর কার্যকালের মেয়াদ শেষ হতে চলেছে। উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে তিনি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের এই গুরুদায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নিয়ম অনুযায়ী এই পদে কোন ব্যক্তি সর্বোচ্চ তিন বছর আসীন থাকতে পারেন।

চলতি বছরের নভেম্বরে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সাথে চুক্তির মেয়াদ উত্তীর্ণ হতে চলেছে সৌরভ গাঙ্গুলীর। তাছাড়া চলতি বছরেই বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থার(আইসিসি) নতুন প্রেসিডেন্ট নিয়োজিত হবে। বর্তমানে আইসিসির প্রেসিডেন্ট পদে নিয়োজিত রয়েছেন নিউজিল্যান্ডের তারকা ক্রিকেটার গ্রেগ বার্কলে। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষে এই গুরুত্বপূর্ণ পদের মেয়াদ উত্তীর্ণ হতে চলেছে। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, আসন্ন দিনে বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থার সভাপতি হতে পারেন সৌরভ গাঙ্গুলী। আর সেই উদ্দেশ্যে খুব শীঘ্রই বিসিসিআইয়ের গুরুত্বপূর্ণ পদ ছাড়তে পারেন তিনি।

এর কারণ অবশ্য আর কিছুই নয়, বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থার নিয়ম অনুযায়ী কোন ব্যক্তি একই সাথে দুটি সংস্থার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ থাকতে পারবে না। অর্থাৎ আইসিসির সভাপতি পদে লড়াই করতে হলে বিসিসিআইয়ের গুরুত্বপূর্ণ সিংহাসন ছাড়তে হবে মহারাজকে। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, সেই কারণে বিসিসিআইয়ের সভাপতি হিসেবে নিজের মেয়াদ কিছুদিন থাকতেই তিনি গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে ইস্তফা দেবেন।

সূত্রের খবর, আইসিসির এই গুরুত্বপূর্ণ পদে সৌরভ গাঙ্গুলীকে দেখতে চান একাধিক নির্বাচকরা। জানা গেছে, আসন্ন নির্বাচনে তারা বর্তমান প্রেসিডেন্ট গ্রেগ বার্কলেকে নয় বরং সৌরভ গাঙ্গুলীকে সমর্থন জানাতে প্রস্তুত। আপনাদের জানিয়ে রাখি, আইসিসির এই গুরুত্বপূর্ণ সিংহাসন দখল করতে কমপক্ষে নির্বাচকদের ৫১% সমর্থনের প্রয়োজন। আর সৌরভ গাঙ্গুলীর নামের পাশে তার চেয়ে ঢের বেশি সমর্থন রয়েছে বলে জানা গেছে।

Check Also

নিজেদের প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবের কাছে হেরে গেল আর্জেন্টিনা

বিশ্বের 51 তম স্থান, সৌদি আরব প্রথমার্ধে কাজ করতে পারত এবং ধূলিসাৎ করতে পারত কারণ …