Monday , July 26 2021
Home / ভাইরাল ভিডিও / পৃথিবীতে ভ,য়ঙ্কর এবং বি,রল প্রজাতির সাতটি সা,প, যা দেখলে আপনার মাথা ঘুরে যেতে পারে।

পৃথিবীতে ভ,য়ঙ্কর এবং বি,রল প্রজাতির সাতটি সা,প, যা দেখলে আপনার মাথা ঘুরে যেতে পারে।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সা,প দেখে ভয় পায় না এমন লোক খুব কমই পাওয়া যাবে। সা,প একটি বি,ষধর প্রাণী। যার বি,ষে মানুষ মরে যায়।পৃথিবীতে এমন অনেক সা,প আছে যাদের লেজে শরীরের যে কোন অংশ লাগলে সাথে সাথে মানুষ মা,রা যায়। পৃথিবীতে এমন অনেক সা,প আছে যাদের কামড়ে মানুষ ৫ থেকে ১০ সেকেন্ডের মধ্যেই মা,রা যায়। কিছু কিছু সা,প আছে তাদের তেমন বি,ষ থাকে না এবং মানুষকে কামড়ালে সেই সা,পের বি,ষ ক্রিয়া করে না। তবে আমরা ছোট বড় সবাই সা,প থেকে বিরত থাকি। কারণ বেশিরভাগ সা,পে বি,ষ,ধর সা,প হয়।

পৃথিবী থেকে কিছু কিছু ভ,য়ঙ্ক,র সা,প দিনদিন বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে। যতই বি,ষাক্ত কিংবা ভ,য়ঙ্ক,র হোক না কেন প্রত্যেকেরই পৃথিবীতে বেঁচে থাকার অধিকার রয়েছে। কেননা এরা পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে। কিন্তু শুধুমাত্র মানুষের জন্যই এরা আজ পৃথিবী থেকে প্রায় বিলুপ্তির মুখে। চলুন দেরী না করে দেখে নেয়া যাক বি,রল প্রজাতির সা,প গুলো। হর্নড ভাইপারঃ এই সা,প সাধারণত সাহারা মরুভূমিতে বসবাস করে।

এদের গায়ের রং মরুভূমির বালুর সাথে মিলে যাওয়ার কারণে এদেরকে সহজেই দেখা যায় না। এবং এরা খুব সহজে নিজেকে বালির মধ্যে আড়াল করে রাখতে পারে। এরা সাধারণত নিশাচর প্রাণী। মরুভূমিতে এদের শিকার খুঁজে পাওয়াটা খুব কঠিন ব্যাপার। তাই এদের শিকারে অধিক পারদর্শী হতে হয়। এই সা,প 70 ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা পর্যন্ত সহ্য করতে পারে। এই সা,প অনেক বি,ষধর হয়ে থাকে। এ সা,প কাউকে কামড়ালে সময়মতো চিকিৎসা না করে মারা যেতে পারে।

বুলস ভাইপারঃ আপনারা হয়তো আগের পাখির পালকের মতো খোলস যুক্ত সা,প দেখেননি। এই সা,পগুলোকে সাধারণত আফ্রিকার দেশগুলোতে পাওয়া যায়। এদের গায়ের রং সাধারণত ঘাঢ় সবুজ এবং লাল রঙের দেখা যায়। এরা সাধারণত উঁচু গাছে বসবাস করে। এর ছোট পাখি এবং বিভিন্ন পোকামাকড় খায়। হিসাবের একটি কামড়ে একজন মানুষকে পেরালাইস্ট করে দিতে পারে।

প্যারাডাইস ফ্লাইং স্নেকঃ আপনারা এই ধরনের সা,প এর পূর্বেও দেখে থাকবেন। যদিও অনেকে ধারণা এরা উড়তে পারে কিন্তু সাধারণত এরা খুব জোরে লাফিয়ে এক গাছ থেকে অন্য গাছে যেতে পারে। এরা খুব পাতলা হয় বাতাসের সাথে ভেসে অনেকটা দূর পর্যন্ত যেতে পারে। এরা বি,ষাক্ত হলেও এদের বি,ষ মানুষের কেমন ক্ষতি করতে পারে না। ইস্টার্ন হগনস স্নেকঃতাদের এমন নাম তাদের নাকের আকৃতি শূকরের নাকের মতন হয় দেয়া হয়েছে।

এই সা,প নর্থ আমেরিকায় বসবাস করে। এদের মুখ অনেক বড় হয়ে থাকে। এই সা,প মানুষের জন্য ক্ষতিকর নয়। তবে এরা মানুষ দেখলে কোবরার মত ফণা তুলে। আর যখন বিপদের সম্মুখীন হয় তখন তারা মরে যাওয়ার মতো অভিনয় করে। গ্রীন ভাইন স্নাকঃ এই সা,প দেখতে অনেকটা লতা পাতার মতো হয়ে থাকে। তারা সাধারণত একটি কলমের মতো মোটা হয়ে থাকে। এরা সাধারণত গাছে বসবাস করে। এদের খাদ্যের তালিকায় রয়েছে ছোট ছোট পাখি এবং পোকামাকর।

স্পাইডার হর্নড ভাইপারঃ এরা সাধারণত মরুভূমি এলাকায় বসবাস করে। এদের শিকারের দক্ষতা একটু ভিন্ন রকমের। এরা শিকারের সময় এদের লেজ ব্যবহার করে থাকে। কেননা এদের লেজ দেখতে অনেকটা মাকড়সার মতো। এদের লেজ মাকড়সার মতো হওয়ায় বিভিন্ন পাখি কিংবা ব্যাং এদের লেজ কে মাকড়সা ভেবে খেতে আসলে তখন তারা এদেরকে ধরে খেয়ে ফেলে।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

Check Also

রয়েছে চোখ বাধা ধরতে হবে হাঁস, গ্রামের উঠোনে আয়োজন করা হল মজার এক খেলা, কানার হাঁস ধরা খেলাটি তুমুল ভাইরাল নেটদুনিয়ায়!

আজ কলকাতা ডেস্কঃ মানুষ সামাজিক জীব। সমাজে বেঁচে থাকার জন্য মানুষকে নানা ধরনের কাজকর্ম করতে ...

You cannot copy content of this page